গান–অভিনয়ে তাহসানের নতুন ভাবনা

সংগীতশিল্পী তাহসান রহমান খান ছয় মাসের বেশি সময় যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন। সেখানে সংগীত ও অভিনয়সম্পর্কিত পড়াশোনায় নিজেকে যুক্ত করেছেন। সপ্তাহখানেক আগে দেশে ফিরেছেন। অংশ নিয়েছেন কনসার্টে। দিন দশেকের মধ্যে আবার উড়াল দেবেন। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় কথা হলো তাঁর সঙ্গে।

বন্ধুদের নিয়ে ‘অলটারনেটিভ রক ব্যান্ড’ দিয়ে তাহসানের শুরু। প্রথম দিকে নিজেদের ভালো লাগার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল তাঁদের গান। ব্যান্ড হিসেবে শো করতেন। গানগুলো রক ঘরানার। তখন তাহসানের লেখা কিছু গান করা ছিল। যেগুলো রক নয়, পপ। গানে গানে এরই মধ্যে দুই দশক পার করেছেন তিনি। এ সময় ব্যান্ড ও একক মিলিয়ে ১১টি অ্যালবাম করেছেন। নাটক ও চলচ্চিত্র মিলিয়ে প্রকাশিত গানের সংখ্যা প্রায় ২০০।

গানের পাশাপাশি তাঁকে অভিনয়েও দেখা গেছে; করেছেন নাটক, টেলিছবি ও চলচ্চিত্র। বেশ কিছুদিন ধরে তাঁর উপলব্ধি হয়েছে গান ও অভিনয়ে নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তোলার। গানে নতুনত্ব আনা এবং ব্যবসায়িক দিক নিয়ে বড় পরিসরে জানতে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি ইনস্টিউটে মিউজিক প্রোগ্রামে ভর্তি হয়েছেন।

একই সময়ে অভিনয়ের দুটি ক্যাম্পও করেছেন। তাহসান বলেন, ‘অনেক দিন ধরে মনে হচ্ছিল, অনেক বছর আগে যা শিখেছিলাম, তা দিয়ে তো গান করলাম। এসব তো করতে করতে শেখা। মনে হচ্ছিল, একটা বিরতি দরকার। অভিনয় থেকেও তো দেড় বছরের বিরতি নিয়েছিলাম। গানের অ্যালবামও অনেক দিন করা হয়নি। এর মধ্যে ভাবলাম যে নতুন করে না শিখলে হয়তো নতুন কিছু দেওয়া হবে না। এ জন্য বিরতিটা নিলাম।

লস অ্যাঞ্জেলেসে তাহসান মিউজিক প্রোডাকশন অ্যান্ড মিউজিক বিজনেস নিয়ে পড়াশোনা করছেন। এরই মধ্যে এক সেমিস্টার শেষ হয়েছে। পরের সেমিস্টার শুরু হবে ১৫ জানুয়ারি। জানান, মিউজিকের অনেক খুঁটিনাটি বিষয় তাঁর জানা হচ্ছে। ব্যবসায়িক নানা দিকও উন্মোচিত হচ্ছে।

অভিনয় ক্যাম্পে

গানের জনপ্রিয়তা তাহসানকে অভিনয়ের আঙিনায় নিয়ে আসে। ব্যস্তও হয়ে ওঠেন সমসাময়িক অভিনয়শিল্পীদের মতো। তবে অভিনয়ে কোনো প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা তাঁর নেই। তাই উপলব্ধি করলেন, অভিনয়ে উৎকর্ষ পেতে হলে কোর্স করতে পারলে ভালো হয়। গানের পাশাপাশি অভিনয়টায় মনোযোগ দিলেন। লস অ্যাঞ্জেলেসে ইয়েল স্কুল অব ড্রামায় ভর্তি হন।

‘ওখানে অনেক অভিনয়ের কোচ আছেন। তাঁরা তিন/চার সপ্তাহের কোর্স করান। দুজন কোচের কাছে গিয়েছিলাম। আমাদের যেমন বিভিন্ন ধরনের গানের ঘরানা আছে, সেখানে অভিনয়েরও নানা ঘরানা আছে। দুটো ঘরানা নিয়ে পড়াশোনা করলাম।

গত দশ বছর যে অভিনয় করেছি, আমি কিন্তু অভিনয় ব্যাকগ্রাউন্ডের না। পরিচালকেরা আমাকে যেভাবে শিখিয়েছেন, সেভাবে করেছি। মনে হয়েছে, যেকোনো বিষয়ে উৎকর্ষ পেতে চাইলে তো পড়ে শিখতে হবে। ওখানে সুযোগটা গেল ছয় মাস পেয়েছি। আরেকটা জায়গায় স্তানিস্লাভস্কির অভিনয় কৌশল নিয়ে পড়েছি। অনেক অনেক বড় বড় অভিনয়ের শিক্ষক আছেন, তাঁরা একেকজন একেকটা পদ্ধতিতে শেখান।’

ওটিটিতে আগ্রহ

অভিনয়ে পড়াশোনা করা তাহসান অভিনয়ের নতুন মাধ্যমে কাজ করতে চান। আলাপের একেবারে শেষ দিকে এসে সেই ইচ্ছা প্রকাশ করেন। বলেন, ‘অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা করেছি, ভালো কোনো ওটিটি প্রজেক্ট পেলে অবশ্যই কাজ করব। অভিনয় দেড় বছর বন্ধ। এ বছর থেকে আবার ভাবব। দেখা যাক ব্যাটে–বলে মেলে কি না।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top